মেনু নির্বাচন করুন

সোনাকানিয়া ইউনিয়নের মামলার আবেদন

 

সোনাকানিয়া ইউনিয়নে মামলার আবেদনের নিয়ম

 

 

 1।আবেদন পত্রটি লিখিত ভাবে দাখিল করতে হবে।

২।যে ইউনিয়ন পরিষদের নিকট আবেদন করা হবে সেই উনিয়ন পরিষদের নাম ঠিকানা থাকতে হবে।

৩।আবেদন কারী এবং প্রতি বাদীর নাম,ঠিকানা ও পরিচয় থাকতে হবে।

৪।সাক্ষী থাকলে সাক্ষীর নাম,ঠিকানা ও পরিচয় থাকতে হবে।

৫।ঘটনা, হবার তারিখ ও সময় থাকতে হবে।

৬।নালিশ বাদাবিরধরন,মূল্যমানথাকতেহবে।

৭।ক্ষতির পরিমাণ, প্রার্থিত প্রতিকার থাকতে হবে।

৮।পক্ষদ্বয়ের সম্পর্ক উল্লেখ থাকতে হবে।

৯।সাক্ষীদের ভূমিকা থাকতে হবে।

১০।মামলা বিলম্বে দায়ের করা হলে তার কারণ উল্লেখ থাকতে হবে।

১১।আবেদন কারীর স্বাক্ষর থাকতে হবে।

১২।মামলা দায়ের তারিখ থাকতে হবে।(ধারা৩)

  1.  

  2. জুলাই ২০১১ হইতে জুন ২০১৩ পর্যন্ত মামলা চলমান আছে ১১ টি মামলা নিষ্পত্তি ১০৩ টি মামলা গুলির রায়= বাস্তবায়িত ৯৬ টি, বাস্তবায়িত নয়- ০৭ টি মামলার আবেদন
  3.  
  4. যেভাবে করতে হয়-
  5. বিরোধের পক্ষ কর্তৃক আবেদনত্র দাখিল ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কর্তৃক যাচাই- আবেদনপত্র গৃহীত হলে তার বিবরণ মামলার রেজিষ্টারে লিখা, আবেদনপত্রের উপর মামলার নাম্বার ও সন লিখা, আবেদনপত্র নাকচ হলে লিখিত আবেদন সহ তা আবেদনকারীকে ফেরত প্রদান গ্রাম আদালতের ফরম যথাযথভাবে পুরণ ও সংরক্ষণ করা। নির্ধারিত তারিখে প্রতিবাদীকে ইউনিয়ন পরিষদে হাজির হবার জন্য সমন প্রদান, প্রতিবাদী আবেদনকারীর দাবী মেনে নিলে গ্রাম আদালত গঠিত হবে না। উভয়পক্ষকে ০৭ দিনের মধ্যে ২ জন করে সদস্য/ ১ জন ইউপি সদস্য ও ১ জন স্থায়ী ব্যক্তি) মনোনয়নের নির্দেশ পক্ষদ্বয়ের মনোনীত ৪ জন সদস্য ও ১ জন চেয়ারম্যানসহ (ইউপি চেয়ারম্যান) গ্রাম আদালত গঠন এবং ৩ দিনের মধ্যে লিখিত আপত্তি দাখিল করার নির্দেশ। শুনানির দিনে পক্ষদ্বয়কে আদালতে সাক্ষীসহ উপস্থিতির জন্য নির্দেশ, আদালতে আইনজীবি নিয়োগ করা যাবে না। শুনানীর দিনে পক্ষদ্বয়ের বক্তব্য গ্রহন সাক্ষ্যগ্রহণ ও তার সারমর্ম লিখা, বিবাদীর বিষয়ে প্রয়োজনে স্থানীয় ভাবে তদন্ত করা। সদস্যগণের ভোটের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও আদালতের চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রকাশ্য আদালতে সিদ্ধান্ত ঘোষনা। সিদ্ধান্ত আপীলযোগ্য না হলে নির্ধারিত তারিখের মধ্যে তা বাস্তবায়ন করা।
  6. সংগ্রহে:- মিজানুর রহমান উদ্যোক্তা/ মোবাইলঃ- ০১৮৪৬-১১১১০২