মেনু নির্বাচন করুন

সোনাকানিয়া ইউনিয়নের ভাষা ও সংস্কৃতি

 

সাতকানিয়া উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী অঞ্চল হলো সোনাকানিয়া ইউনিয়ন । প্রথম থেকে আজ পর্যন্ত সোনাকানিয়া  ইউনিয়ন শিক্ষা, সংস্কৃতি, ধর্মীয়অনুষ্ঠান, খেলাধুলা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার নিজস্বস্বকীয়তা আজও সমুজ্জ্বল।সোনাকানিয়া ইউনিয়নের লোকজনের প্রধান ভাষা হলো চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী আঞ্চলিক ভাষা। ইউনিয়নের জনগণের মধ্যে রয়েছে অত্যন্ত ভ্রাতৃত্যবোধ, আন্তরিকতা বিদ্যমান।এই অঞ্চলের মানুষের প্রধান পোশাক শাড়ি, লুঙ্গি, শার্ট, পেন্ট, সেলোয়ার ইত্যাদি।

 

ব্রিটিশ শাসনামলের আনুমানিক ১৯৪৩ সালে পটিয়া মহকুমার অধীনে বর্তমানে গারাংগিয়া ও

সোনাকানিয়া ২ টি গ্রাম নিয়ে সোনাকানিয়া ইউনিয়নগঠিতহয়। ঐ সময়ে ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যানকে গ্রাম প্রেসিডেন্ট বলা হত। ১৯৫০সালে পাকিস্তান শাসনামলে গ্রাম প্রেসিডেন্ট এর পদকে ইউনিয়ন চেয়ারম্যানপদবী ঘোষণা করা হয়। ১৯৫৪সালে প্রথম গ্রাম প্রেসিডেন্ট হন ছিদ্দিক আহমদ ।তারপর পর্যায়ক্রমে গোলাম ইয়াকুব আলি,  প্রেসিডেন্ট এর দায়িত্বপালন করেন।১৯৭১ এবাং বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর পরবর্তী সময়ে আনু মিয়া,বেলায়াত আলি ভারপ্রাপ্ত),ইসমাইল হোসাইন,ছৈয়দ হোছেন, আমজাদ হোছেন,ইউনিয়ন পরিষদচেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন

 

করেন। বর্তমানে০৪ টি ছোট বড় গ্রাম মিলিয়েসোনাকানিয়া  ইউনিয়ন পরিষদ।সোনাকানিয়া  ইউনিয়নে  মূস্লিম হিন্দু বৌদ্দ তিন ধর্মের লোক মীলে মীষে বাস করে। বর্তমানেইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে দ্বায়ীত্বে আছেন আলহাজ্ব নূর আহমদ সাহেবতিনি 2011 সালে চেয়ারম্যান হিসেবে দ্বায়ীত্ব অংশ গ্রাহণ করেন বর্তমানে ওতিনি দ্বায়ীত্বে আছেন।আমাদের সোনাকানিয়া ইউনিয়ন পরিষদে প‍ঁচিশ জন সদস্য রহিয়াছে. নয় জন ওয়ার্ড সদস্য, তিন জন মহিলা সদস্য. দশ জন গ্রাম পুলিশ এক জন সচিব একজন উদ্যোক্ত এবং একজনচেয়ারম্যান

আমরা সবাই জনগনের সেবা করি।